New to Nutbox?

SBD recovery case #1 : beneficiary rme [round 24]

6 comments

sbd-recovery
73
19 days agoSteemit3 min read

This post is made for recovering lost SBD : 1470

Recovered so far : 695.569 SBD


গল্প (রক্ত তৃষা) - পর্ব ২৩


vampire-2115396_1280.jpg
Copyright Free Image Source : PixaBay


শয়নকক্ষের দ্বার অর্গলবদ্ধ হতেই কমলাদেবী চন্ডের সামনে উদ্বিগ্ন মুখে মেঝের ওপরেই বসে পড়লেন । তাঁর বুক মৃদু মৃদু কাঁপছে, দারুন উৎকণ্ঠায় গলা শুকিয়ে যাচ্ছে ।

চন্ড কিছুক্ষণ থম মেরে দাঁড়িয়ে রইলো । তারপর সেও কমলাদেবীর সামনের মেঝেতে বসে পড়লো । কিছুক্ষণ চোখ বুজে ধ্যানের ভঙ্গীতে বসে রইলো । তারপর সহসা ঝটকা দিয়ে ধ্যান ভেঙে উঠে উচ্চস্বরে কিছু সংস্কৃত মন্ত্রপাঠ করে চোখ মেলে চাইলো কমলাদেবীর দিকে ।

"মা, বাবুর সামনে সমূহ বিপদ দেখতে পাচ্ছি । দেবী অপ্রসন্ন হয়েছেন তাঁর প্রতি । দেবীর অভিশাপে বাবুর জীবনে নেমে আসতে চলেছে ঘোর অমানিশা । আগামী সাত দিনের মধ্যে রক্তবমি হয়ে তাঁর মৃত্যু কেউ ঠেকাতে পারবে না, যদি না দেবীকে আবার প্রসন্ন করা যায় ।"

এই কথা শ্রবণ করা মাত্রই কমলার মুখ পাংশুবর্ণ ধারণ করলো । এমনিতেই গর্ভাবস্থায় মেয়েদের মন খুবই নরম থাকে, চিত্ত ভীষণ চঞ্চল থাকে আর মানসিক স্থৈর্যতা অনেকটাই কমে যায় । এই সময় মেয়েদের সারাক্ষণ মনের মধ্যে একটা উদ্বেগের ভাব কাজ করে, আর তার সাথে যদি বাড়তি তীব্র উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠা যোগ হয় তবে পাগল হওয়ার দশা হয় ।

কমলারও সেইরূপ দশা হলো । তিনি হতবিহ্বলের মতো কিছুক্ষণ বসে থেকে সহসা ডুকরে কেঁদে উঠলেন । কমলার কান্না শুনে চন্ড মনে মনে যারপরনাই খুশি হলো । যাক তার দুরভিসন্ধি কাজে লেগেছে । মাছ টোপ গিলেছে, এখন শুধু গলায় বঁড়শি বেঁধার পালা, আর তারপরে ডাঙায় খেলিয়ে তোলা বাকি থাকবে শুধু ।

অন্ধকারে চন্ডের চোখ জ্বলজ্বল করে উঠলো সহসা, খুশিতে । সে বললো, "রানীমা, আপনি এতটা উদ্বিগ্ন হবেন না । এখনো এই বিপদ থেকে পরিত্রাণের উপায় আছে । আমার ওপরে ভরসা রাখতে পারেন । আমি কাপালিকের শিষ্য, নিজেও এক শক্তিশালী কাপালিক । আমি জানি পরিত্রাণের উপায় । তবে সে বড় কঠিন কর্ম । আপনি করতে পারবেন ?"

কমলা কান্না বিজড়িত কণ্ঠে বলে উঠলেন, "হ্যাঁ, বাবা, আমি নিশ্চয়ই পারবো । ওঁনার মঙ্গলের জন্য, ওঁনার জীবন বাঁচানোর জন্য আমি সকল কষ্ট সহ্য করতে রাজি আছি ।"

"তবে, আপনাকে যা বলবো, অক্ষরে অক্ষরে তাই পালন করতে হবে । বেলকাঁটা দিয়ে নিজের বুক চিরে বুকের এক ফোঁটা তাজা রক্ত উৎসর্গ করতে হবে দেবীমূর্তির পায়ে । আজ রাতেই । আজকে অমাবস্যা তিথি আছে । এরপরে তিথি আসতে পুরো একটি মাসের অপেক্ষা । কিন্তু, আমাদের হাতে তো আর তত সময় নেই । এক সপ্তাহের চেয়েও কম সময় হাতে আছে আমাদের । তাই যা করার আজ রাতেই করতে হবে ।"

"আমি রাজি, রাজি । অবশ্যই রাজি । আমার বুকের তাজা রক্ত আমি মায়ের পায়ে উৎসর্গ করতে রাজি আছি । এক ফোঁটা কেন, যত ইচ্ছে তত ফোঁটা উৎসর্গ করতে রাজি আছি ।"

"এক ফোঁটাই যথেষ্ঠ মা । সতী সাধ্বীনারীর বুকের এক ফোঁটা তাজা রক্তে দেবীর আরাধনা করলে দেবী অবশ্যই প্রসন্না হবেন । বিপদের কালোমেঘও কেটে যাবে । তবে মা আপনাকে কিন্তু একাই যেতে হবে আজ রাতে শ্মশানে । কাকপক্ষীতেও টের পেলে কিন্তু দেবীর পূজায় ব্যাঘাত ঘটবে ।"

একা একা গভীর রাতে শ্মশানে যেতে হবে ? ভাবতেই ভয়ে শিউরে উঠলেন কমলাদেবী ।

[চলবে]

Comments

Sort byBest